সূচী প - ম

 

পড়্ তুই সব চেয়ে নিষ্ঠুর মন্ত্র    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
পথ এখনো শেষ হল না    (পূজা)
পথ চেয়ে যে কেটে গেল    (পূজা)
পথ দিয়ে কে যায় গো চলে    (পূজা|ফাল্গুনী)
পথ ভুলেছিস সত্যি বটে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|বাল্মীকিপ্রতিভা)
পথহারা তুমি পথিক যেন গো    (প্রেম|মায়ার খেলা)
পথিক পরান, চল্‌, চল্‌ সে পথে তুই     (প্রেম)
পথিক মেঘের দল জোটে ওই    (প্রকৃতি)
পথিক হে, ওই-যে চলে    (পূজা)
পথে যেতে তোমার সাথে    (নাট্যগীতি)
পথের সাথি, নমি বারম্বার     (পূজা|অরূপরতন)
পাখি, তোর সুর ভুলিস নে    (প্রেম ও প্রকৃতি)
পাখি বলে, ‘চাঁপা, আমারে কও    (বিচিত্র)
পাগল আজি আগল খোলে     (প্রেম)
পাগলিনী, তোর লাগি কী আমি করিব বল্‌    (প্রেম ও প্রকৃতি)
পাছে চেয়ে বসে আমার মন    (নাট্যগীতি)
পাছে সুর ভুলি এই ভয় হয়    (প্রেম|শাপমোচন)
পাণ্ডব আমি অর্জুন গাণ্ডীবধন্বা    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা)
পাত্রখানা যায় যদি যাক     (পূজা)
পাদপ্রান্তে রাখ’ সেবকে    (পূজা)
পান্থ, এখনো কেন অলসিত অঙ্গ    (পূজা)
পান্থপাখির রিক্ত কুলায়    (প্রেম)
পায়ে পড়ি শোনো ভাই গাইয়ে    (বিচিত্র)
পিনাকেতে লাগে টঙ্কার    (পূজা)
পিতার দুয়ারে দাঁড়াইয়া সবে    (পূজা ও প্রার্থনা)
পিপাসা হায় নাহি মিটিল, নাহি মিটিল    (পূজা)
পুব-সাগরের পার হতে কোন্‌ এল পরবাসী    (প্রকৃতি)
পূব-হাওয়াতে দেয় দোলা আজ    (প্রকৃতি)
পুরাতনকে বিদায় দিলে না যে    (প্রকৃতি)
পুরী হতে পালিয়েছে যে পুরসুন্দরী    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|শ্যামা)
পুরুষের বিদ্যা করেছিনু শিক্ষা    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা)
পুষ্প দিয়ে মারো যারে    (পূজা|অরূপরতন)
পুষ্প ফুটে কোন্‌ কুঞ্জবনে    (প্রকৃতি)
পুষ্পবনে পুষ্প নাহি, আছে অন্তরে    (প্রেম)
পূর্ণ-আনন্দ পূর্ণমঙ্গলরূপে হৃদয়ে এসো    (পূজা)
পূর্বগগনভাগে    (পূজা)
পূর্বাচলের পানে তাকাই    (প্রকৃতি)
পেয়েছি অভয়পদ, আর ভয় কারে    (পূজা)
পেয়েছি সন্ধান তব অন্তর্যামী    (পূজা)
পোড়া মনে শুধু পোড়া মুখখানি জাগে রে    (নাট্যগীতি)
পোহালো পোহালো বিভাবরী    (প্রকৃতি)
পৌষ তোদের ডাক দিয়েছে    (প্রকৃতি)
প্রখর তপনতাপে    (প্রকৃতি)
প্রথম আলোর চরণধ্বনি উঠল বেজে যেই    (পূজা)
প্রথম ফুলের পাব প্রসাদ     (প্রকৃতি)
প্রথম যুগের উদয়দিগঙ্গনে    (ভূমিকা)
প্রভাত-আলোরে মোর কাঁদায়ে গেলে    (প্রেম)
প্রভাত হইল নিশি    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|মায়ার খেলা)
প্রভাতে বিমল আনন্দে    (পূজা)
প্রভু, আজি তোমার দক্ষিণ হাত রেখো না ঢাকি    (পূজা)
প্রভু, এলেম কোথায়    (পূজা ও প্রার্থনা)
প্রভু, এসেছ উদ্ধারিতে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
প্রভু, খেলেছি অনেক খেলা    (পূজা ও প্রার্থনা)
প্রভু, তোমার বীণা যেমনি বাজে    (পূজা)
প্রভু, বলো বলো কবে    (পূজা|অরূপরতন)
প্রমোদে ঢালিয়া দিনু মন    (নাট্যগীতি)
প্রলয়নাচন নাচলে যখন আপন ভুলে    (বিচিত্র|তপতী)
প্রহরী, ওগো প্রহরী    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|শ্যামা)
প্রাঙ্গণে মোর শিরীষশাখায় ফাগুন মাসে    (বিচিত্র)
প্রাণ নিয়ে তো সট্‍‍কেছি রে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|বাল্মীকিপ্রতিভা| কালমৃগয়া)
প্রাণের প্রাণ জাগিছে তোমারি প্রাণে    (পূজা)
প্রিয়ে, তোমার ঢেঁকি হলে যেতেম বেঁচে    (নাট্যগীতি)
প্রেম এসেছিল নিঃশব্দচরণে    (প্রেম ও প্রকৃতি)
প্রেমপাশে ধরা পড়েছে দুজনে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|মায়ার খেলা)
প্রেমানন্দে রাখো পূর্ণ আমারে দিবসরাত    (পূজা)
প্রেমে প্রাণে গানে গন্ধে আলোকে পুলকে    (পূজা)
প্রেমের ফাঁদ পাতা ভুবনে    (প্রেম|মায়ার খেলা)
প্রেমের মিলনদিনে সত্য সাক্ষী যিনি অন্তর্যামী    (আনুষ্ঠানিক সংগীত)


ফাগুন-হাওয়ায় রঙে রঙে পাগল ঝোরা লুকিয়ে ঝরে    (প্রকৃতি)
ফাগুনের নবীন আনন্দে    (প্রকৃতি)
ফাগুনের শুরু হতেই শুকনো পাতা ঝরল যত    (প্রকৃতি)
ফিরায়ো না মুখখানি    (প্রেম ও প্রকৃতি)
ফিরে ফিরে আমায় মিছে ডাক স্বামী    (বিচিত্র)
ফিরে চল্‌, ফিরে চল্‌, ফিরে চল্‌ মাটির টানে    (আনুষ্ঠানিক)
ফিরো না ফিরো না আজি    (পূজা ও প্রার্থনা)
ফুরোলো ফুরোলো এবার পরীক্ষার এই পালা    (বিচিত্র)
ফুল তুলিতে ভুল করেছি প্রেমের সাধনে    (প্রেম)
ফুল বলে, ধন্য আমি মাটির ’পরে    (পূজা|চণ্ডালিকা)
ফুলটি ঝরে গেছে রে    (প্রেম ও প্রকৃতি)
ফুলে ফুলে ঢ’লে ঢ’লে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|কালমৃগয়া)
ফেলে রাখলেই কি পড়ে রবে    (পূজা)


বকুলগন্ধে বন্যা এল    (প্রকৃতি|তপতী)
বজাও রে মোহন বাঁশি    (ভানুসিংহের পদাবলী)
বজ্রমানিক দিয়ে গাঁথা    (প্রকৃতি)
বড়ো আশা করে এসেছি গো    (পূজা ও প্রার্থনা)
বড়ো থাকি কাছাকাছি    (নাট্যগীতি)
বঁধু, কোন্ আলো লাগল চোখে     (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা
বঁধু, তোমায় করব রাজা তরুতলে    (প্রেম)
বঁধুয়া, অসময়ে কেন হে প্রকাশ    (নাট্যগীতি|প্রায়শ্চিত্ত)
বঁধুয়া, হিয়া-পর আও রে    (ভানুসিংহের পদাবলী)
বঁধুর লাগি কেশে আমি পরব এমন ফুল    (নাট্যগীতি)
বনে এমন ফুল ফুটেছে    (প্রেম)
বনে বনে সবে মিলে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|কালমৃগয়া)
বন্ধু, কিসের তরে অশ্রু ঝরে     (নাট্যগীতি)
বরিষ ধরা-মাঝে শান্তির বারি    (পূজা)
বর্ষ ওই গেল চলে    (পূজা ও প্রার্থনা)
বর্ষ গেল, বৃথা গেল, কিছুই করি নি হায়    (পূজা)
বর্ষণমন্দ্রিত অন্ধকারে এসেছি তোমারি দ্বারে    (প্রেম)
বল্‌, গোলাপ, মোরে বল্‌    (প্রেম)
বল্ দেখি সখী লো     (প্রেম)
বল তো এইবারের মতো    (পূজা)
বল দাও মোরে বল দাও    (পূজা)
বলব কী আর বলব খুড়ো    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|বাল্মীকিপ্রতিভা)
বলি, ও আমার গোলাপ-বালা    (প্রেম ও প্রকৃতি)
বলি গো সজনী, যেয়ো না    (প্রেম ও প্রকৃতি)
বলে, দাও জল, দাও জল    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
বলেছিল ‘ধরা দেব না’    (নাট্যগীতি)
বলো দেখি সখী লো     (প্রেম)
বলো বলো পিতা, কোথা সে গিয়েছে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|কালমৃগয়া)
বলো বলো, বন্ধু, বলো    (পূজা ও প্রার্থনা)
বলো সখী, বলো তারি নাম    (প্রেম|তাসের দেশ)
বসন্ত আওল রে    (ভানুসিংহের পদাবলী)
বসন্ত, তোর শেষ করে দে    (প্রকৃতি|অরূপরতন)
বসন্তপ্রভাতে এক মালতীর ফুল    (নাট্যগীতি)
বসন্তে কি শুধু কেবল ফোটা ফুলের মেলা রে    (প্রকৃতি|রাজা)
বসন্তে ফুল গাঁথল আমার জয়ের মালা    (প্রকৃতি|ফাল্গুনী)
বহু যুগের ও পার হতে আষাঢ় এল আমার মনে    (প্রকৃতি)
বাকি আমি রাখব না কিছুই    (প্রকৃতি)
বাংলার মাটি বাংলার জল    (স্বদেশ)
বাঁচান বাঁচি, মারেন মরি    (পূজা|প্রায়শ্চিত্ত)
বাছা, তুই যে আমার বুক-চেরা ধন     (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
বাছা, সহজ ক’রে বল্ আমাকে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
বাজাও আমারে বাজাও    (পূজা)
বাজাও তুমি, কবি, তোমার সঙ্গীত সুমধুর    (পূজা)
বাজিবে , সখী , বাঁশি বাজিবে    (প্রেম|শাপমোচন)
বাজে করুণ সুরে হায় দূরে    (প্রেম)
বাজে গুরুগুরু শঙ্কার ডঙ্কা    (বিচিত্র|শ্যামা)
বাজে বাজে রম্যবীণা বাজে    (পূজা)
বাজে রে বাজে ডমরু বাজে    (নাট্যগীতি)
বাজে রে বাজে রে    (নাট্যগীতি)
বাজো রে বাঁশরি, বাজো    (নাট্যগীতি|শাপমোচন)
বাণী তব ধায় অনন্ত গগনে লোকে লোকে    (পূজা)
বাণী বীণাপাণি, করুণাময়ী    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|বাল্মীকিপ্রতিভা)
বাণী মোর নাহি    (প্রেম)
বাদরবরখন, নীরদগরজন, বিজুলীচমকন ঘোর    (ভানুসিংহের পদাবলী)
বাদল-ধারা হল সারা, বাজে বিদায়-সুর    (প্রকৃতি)
বাঁধন কেন ভূষণ-বেশে    (নাট্যগীতি)
বাঁধন-ছেঁড়ার সাধন হবে    (পূজা)
বার বার, সখি, বারণ করনু ন যাও মথুরাধাম    (ভানুসিংহের পদাবলী)
বারে বারে পেয়েছি যে তারে    (পূজা)
বারে বারে ফিরে ফিরে তোমার পানে    (প্রেম ও প্রকৃতি)
বাঁশরি বাজাতে চাহি, বাঁশরি বাজিল কই    (প্রেম)
বাঁশি আমি বাজাই নি কি পথের ধারে ধারে    (প্রেম)
বাসন্তী, হে ভূবনমোহিনী    (প্রকৃতি)
বাহির পথে বিবাগী হিয়া    (প্রেম)
বাহির হলেম আমি আপন ভিতর হতে    (নাট্যগীতি)
বিজয়মালা এনো আমার লাগি    (প্রেম|তাসের দেশ)
বিদায় করেছ যারে নয়নজলে    (প্রেম|মায়ার খেলা)
বিদায় নিয়ে গিয়েছিলেম বারে বারে    (প্রকৃতি|ফাল্গুনী)
বিদায় যখন চাইবে তুমি দক্ষিণসমীরে    (প্রকৃতি)
বিধি ডাগর আঁখি যদি দিয়েছিল    (প্রেম ও প্রকৃতি)
বিধির বাঁধন কাটবে তুমি এমন শক্তিমান    (স্বদেশ)
বিনা সাজে সাজি দেখা দিয়েছিলে কবে    (প্রেম|চিত্রাঙ্গদা)
বিপাশার তীরে ভ্রমিবারে যাই    (নাট্যগীতি)
বিপুল তরঙ্গ রে, বিপুল তরঙ্গ রে    (পূজা)
বিমল আনন্দে জাগো রে    (পূজা)
বিরহে মরিব ব’লে ছিল মনে পণ    (নাট্যগীতি)
বিশ্বজোড়া ফাঁদ পেতেছ    (পূজা|অরূপরতন)
বিশ্ববিদ্যাতীর্থপ্রাঙ্গন কর’ মহোজ্জ্বল আজ হে    (আনুষ্ঠানিক সংগীত)
বিশ্বরাজালয়ে বিশ্ববীণা বাজিছে    (আনুষ্ঠানিক)
বীণা বাজাও হে মম অন্তরে    (পূজা)
বুক বেঁধে তুই দাঁড়া দেখি    (স্বদেশ)
বুক যে ফেটে যায়    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|শ্যামা)
বুকের বসন ছিঁড়ে     (প্রেম ও প্রকৃতি)
বুঝি এল, বুঝি এল ওরে প্রাণ    (প্রেম ও প্রকৃতি)
বুঝি ওই সুদূরে ডাকিল মোরে    (পূজা ও প্রার্থনা)
বুঝি বেলা বহে যায়    (প্রেম)
বুঝেছি কি বুঝি নাই বা সে তর্কে কাজ নাই    (পূজা)
বুঝেছি বুঝেছি সখা, ভেঙেছে প্রণয়    (নাট্যগীতি)
বৃথা গেয়েছি বহু গান    (প্রেম ও প্রকৃতি)
বৃষ্টিশেষের হাওয়া কিসের খোঁজে বইছে ধীরে ধীরে    (প্রকৃতি)
বেঁধেছ প্রেমের পাশে ওহে প্রেমময়    (পূজা)
বেলা যায় বহিয়া    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা)
বেলা যে চলে যায়    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|কালমৃগয়া)
বেসুর বাজে রে    (পূজা)
বৈশাখ হে, মৌনী তাপস    (প্রকৃতি)
বৈশাখের এই ভোরের হাওয়া আসে মৃদুমন্দ    (প্রকৃতি)
বোলো না, বোলো না, বোলো না– আমি দয়াময়ী    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|শ্যামা)
ব্যর্থ প্রাণের আবর্জনা পুড়িয়ে ফেলে আগুন জ্বালো    (স্বদেশ)
ব্যাকুল প্রাণ কোথা সুদূরে ফিরে    (পূজা)
ব্যাকুল বকুলের ফুলে    (প্রকৃতি)
ব্যাকুল হয়ে বনে বনে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|বাল্মীকিপ্রতিভা)


ভক্ত করিছে প্রভুর চরণে জীবনসমর্পণ    (পূজা)
ভক্তহৃদিবিকাশ প্রাণবিমোহন    (পূজা)
ভবকোলাহল ছাড়িয়ে    (পূজা ও প্রার্থনা)
ভয় করব না রে     (প্রেম)
ভয় নেই রে তোদের    (প্রেম ও প্রকৃতি)
ভয় হয় পাছে তব নামে আমি    (পূজা)
ভয়েরে মোর আঘাত করো ভীষণ    (পূজা)
ভস্মে ঢাকে ক্লান্ত হুতাশন    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা)
ভাগ্যবতী সে যে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা)
ভাঙব তাপস, ভাঙব     (প্রকৃতি)
ভাঙল হাসির বাঁধ    (প্রকৃতি)
ভাঙা দেউলের দেবতা    (নাট্যগীতি)
ভাঙো বাঁধ ভেঙে দাও    (বিচিত্র)
ভাবনা করিস নে তুই    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
ভারত রে, তোর কলঙ্কিত পরমাণুরাশি    (জাতীয় সংগীত)
ভালো ভালো, তুমি দেখব পালাও কোথা    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|শ্যামা)
ভালো যদি বাস, সখী    (নাট্যগীতি)
ভালোবাসিলে যদি সে    (নাট্যগীতি)
ভালোবেসে দুখ সেও সুখ    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|মায়ার খেলা)
ভালোবেসে যদি সুখ নাহি    (প্রেম|মায়ার খেলা)
ভালো মানুষ নই রে মোরা    (বিচিত্র|ফাল্গুনী)
ভিক্ষে দে গো, ভিক্ষে দে    (নাট্যগীতি)
ভুবনজোড়া আসনখানি     (পূজা)
ভুবন হইতে ভুবনবাসী    (পূজা)
ভুবনেশ্বর হে    (পূজা)
ভুল করেছিনু, ভুল ভেঙেছে    (প্রেম|মায়ার খেলা)
ভুল কোরো না গো     (প্রেম)
ভুলে ভুলে আজ ভুলময়    (নাট্যগীতি)
ভেঙেছে দুয়ার, এসেছ জ্যোতির্ময়, তোমারি হউক জয়    (পূজা)
ভেবেছিলেম আসবে ফিরে    (প্রকৃতি)
ভোর থেকে আজ বাদল ছুটেছে    (প্রকৃতি)
ভোর হল বিভাবরী, পথ হল অবসান    (পূজা|অরূপরতন)
ভোর হল যেই শ্রাবণশর্বরী    (প্রকৃতি)
ভোরের বেলা কখন এসে    (পূজা)


মণিপুরনৃপদুহিতা    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা)
মধুঋতু নিত্য হয়ে রইল তোমার মধুর দেশে    (নাট্যগীতি)
মধু-গন্ধে-ভরা মৃদু-স্নিগ্ধছায়া নীপ-কুঞ্জতলে    (প্রকৃতি)
মধুর বসন্ত এসেছে মধুর মিলন ঘটাতে    (প্রকৃতি|মায়ার খেলা)
মধুর মিলন। হাসিতে মিলেছে হাসি, নয়নে নয়ন    (নাট্যগীতি)
মধুর রূপে বিরাজ হে বিশ্বরাজ    (পূজা)
মধ্যদিনে যবে গান বন্ধ করে পাখি    (প্রকৃতি)
মন চেয়ে রয় মনে মনে     (প্রেম)
মন, জাগ’ মঙ্গললোকে অমল অমৃতময় নব আলোকে    (পূজা)
মন জানে মনোমোহন আইল    (প্রেম)
মন প্রাণ কাড়িয়া লও হে হৃদয়স্বামী    (পূজা ও প্রার্থনা)
মন যে বলে চিনি চিনি    (প্রকৃতি|তপতী)
মন রে ওরে মন    (পূজা)
মন হতে প্রেম যেতেছে শুকায়ে    (প্রেম ও প্রকৃতি)
মনে যে আশা লয়ে এসেছি    (প্রেম)
মনে রয়ে গেল মনের কথা    (প্রেম)
মনে হল পেরিয়ে এলেম অসীম পথ    (প্রকৃতি)
মনের মধ্যে নিরবধি শিকল গড়ার কারখানা    (পূজা ও প্রার্থনা)
মনোমন্দিরসুন্দরী! মণিমঞ্জীর গুঞ্জরি    (নাট্যগীতি)
মনোমোহন, গহন যামিনীশেষে    (পূজা)
মন্দিরে মম কে আসিলে হে    (পূজা)
মম অঙ্গনে স্বামী আনন্দে হাসে    (পূজা)
মম অন্তর উদাসে    (প্রকৃতি)
মম দুঃখের সাধন    (প্রেম)
মম মন-উপবনে চলে অভিসারে    (প্রকৃতি)
মম যৌবননিকুঞ্জে গাহে পাখি    (প্রেম)
মম রুদ্ধমুকুলদলে এসো সৌরভ-অমৃতে    (প্রেম)
মরণ রে, তুঁহুঁ মম শ্যামসমন    (প্রেম)
মরণসাগরপারে তোমরা অমর    (পূজা)
মরণের মুখে রেখে    (পূজা)
মরি, ও কাহার বাছা    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|বাল্মীকিপ্রতিভা)
মরি লো) কার বাঁশি     (প্রকৃতি)
মরি লো মরি, আমায় বাঁশিতে ডেকেছে কে    (প্রেম)
মরুবিজয়ের কেতন উড়াও শূন্যে    (আনুষ্ঠানিক)
মলিন মুখে ফুটুক হাসি    (নাট্যগীতি|প্রায়শ্চিত্ত)
মহানন্দে হেরো গো সবে    (পূজা ও প্রার্থনা)
মহাবিশ্বে মহাকাশে মহাকালমাঝে    (পূজা ও প্রার্থনা)
মহারাজ, একি সাজে এলে হৃদয়পুরমাঝে    (পূজা)
মহাসিংহাসনে বসি    (পূজা ও প্রার্থনা)
মা আমার, কেন তোরে ম্লান নেহারি    (নাট্যগীতি)
মা, একবার দাঁড়া গো হেরি চদ্রানন    (নাট্যগীতি)
মা, ওই-যে তিনি চলেছেন    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
মা কি তুই পরের দ্বারে পাঠাবি    (স্বদেশ)
মা গো, এতদিনে মনে হচ্ছে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন    (পূজা ও প্রার্থনা)
মাটি তোদের ডাক দিয়েছে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চণ্ডালিকা)
মাটির প্রদীপখানি আছে    (বিচিত্র)
মাটির বুকের মাঝে বন্দী যে জল    (বিচিত্র)
মাতৃমন্দির-পুণ্য-অঙ্গন কর’ মহোজ্জ্বল আজ হে    (স্বদেশ)
মাধব, না কহ আদরবাণী    (ভানুসিংহের পদাবলী)
মানা না মানিলি    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|কালমৃগয়া)
মায়াবনবিহারিণী হরিণী    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|শ্যামা)
মালা হতে খসে-পড়া ফুলের একটি দল    (পূজা|অরূপরতন)
মিছে ঘুরি এ জগতে     (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|মায়ার খেলা)
মিটিল সব ক্ষুধা    (পূজা ও প্রার্থনা)
মিলনরাতি পোহালো, বাতি নেভার বেলা এল    (প্রেম)
মুখখানি কর মলিন বিধুর যাবার বেলা    (প্রেম)
মুখপানে চেয়ে দেখি, ভয় হয় মনে    (প্রেম)
মেঘের কোলে কোলে যায় রে চলে    (প্রকৃতি)
মেঘের কোলে রোদ হেসেছে    (প্রকৃতি)
মেঘেরা চলে চলে যায়    (বিচিত্র)
মোদের কিছু নাই রে নাই    (বিচিত্র|রাজা)
মোদের যেমন খেলা তেমনি যে কাজ    (বিচিত্র|ফাল্গুনী)
মোর পথিকেরে বুঝি এনেছ এবার    (পূজা)
মোর প্রভাতের এই প্রথম খনের কুসুমখানি    (পূজা)
মোর বীণা ওঠে কোন্‌ সুরে বাজি    (প্রকৃতি|শাপমোচন)
মোর মরণে তোমার হবে জয়    (পূজা)
মোর সন্ধ্যায় তুমি সুন্দরবেশে এসেছ    (পূজা)
মোর হৃদয়ের গোপন বিজন ঘরে    (পূজা)
মোরা চলব না    (নাট্যগীতি|ফাল্গুনী)
মোরা জলে স্থলে কত ছলে    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|মায়ার খেলা)
মোরা ভাঙব তাপস, ভাঙব     (প্রকৃতি)
মোরা সত্যের ’পরে মন আজি    (বিচিত্র)
মোরে ডাকি লয়ে যাও    (পূজা)
মোহিনী মায়া এল    (গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য|চিত্রাঙ্গদা)